Gallery

Advertisement

Main Ad

Travel

Technology

ফিরলেন মুশফিকও

 

৩১৫ রানের বড় লক্ষ্য পেরোতে দুর্দান্ত একটা শুরু দরকার ছিল বাংলাদেশের। আর সেটি পেতে রানের ফোয়ারা প্রত্যাশিত ছিল তামিম ইকবালের ব্যাটে। সে আশায় গুঁড়ে বালি প্রথম ওভারের পঞ্চম বলেই। তামিমকে যে ইয়র্কারটা দিলেন লাসিথ মালিঙ্গা, সেটা ঠেকানোর সাধ্য বিশ্বের খুব কম ব্যাটসম্যানেরই আছে। ভূপাতিত তামিম পরিষ্কার বোল্ড।

শূন্য রানে বাংলাদেশ অধিনায়ককে ফেরানোর পর মালিঙ্গার দ্বিতীয় শিকার সৌম্য সরকার। এবারও সেই মৃত্যুবাণ ইয়র্কার। আগের বেশ কয়েকটা দারুণ ফুটওয়ার্কে সামলে নিয়েছিলেন, কিন্তু এটা আর পারলেন না। ২২ বলে ১৫ রান করা সৌম্যর মিডল স্টাম্প ছত্রখান! প্রস্তুতি ম্যাচে তিনে দারুণ ব্যাটিং করা মিঠুন ফিরে গেছেন এর আগেই, ২১ বলে ১০ রান করে নুয়ান প্রদীপের বলে এল্বিডব্লু হয়ে। রিভিউ নেওয়ার দরকার ছিল না, তবু নিলেন এবং সেটা নষ্ট হলো। সৌম্যর পরে গেছেন মাহমুদউল্লাহ, ৩ রান করে, লাহিরু কুমারার বলে স্লিপের ওপর দিয়ে উচ্চাবিলাসী শট খেলতে গিয়ে ক্যাচ দিয়েছেন থার্ড ম্যানে। ৩৯ রানে ৪ উইকেট নেই!

ব্যাটিং বিপর্যয়ের পর বাংলাদেশকে ম্যাচে ফিরিয়েছেন সাব্বির রহমান–মুশফিকুর রহিম। দুজনের জুটিতে পথ খোঁজার চেষ্টা করেছে। সাব্বিরের আউট। বাংলাদেশ, ২৯ ওভারে ৫ উইকেটে রান ১৫৩ । বিশ্বকাপে খুব একটা ম্যাচ খেলার সুযোগ পাননি সাব্বির। পঞ্চম উইকেটে দুজনের জুটি হয়েছে ১১১ রান। এই জুটি আরও লম্বা বাংলাদেশের আশা উজ্জ্বল হতো। সেটি হয়নি সাব্বির ৬০ রানে আউট হওয়ায়। আশার প্রদীপ হয়ে ওঠা মুশফিকও ফিরেছেন ।

NEXT ARTICLE Next Post
PREVIOUS ARTICLE Previous Post
NEXT ARTICLE Next Post
PREVIOUS ARTICLE Previous Post
 

Sports

Delivered by FeedBurner