Tuesday, September 10, 2019

লালমোহনে জসিম ফরাজীকে কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চান ১২ নং ওয়ার্ডের জনগণ।

আইসিটিনিউজ বিডি২৪:লালমোহন প্রতিনিধি: ভোলার লালমোহন পৌরসভা নির্বাচনে পাড়া- মহল্লায় চায়ের টেবিলে ভোটের হিসাব কষছে সাধারণ ভোটাররা। এরই মধ্যে নতুন পুরাতন সহ চারজন মেয়র প্রার্থী ও ১২ টি ওয়ার্ডে কয়েক ডজন কাউন্সিলর প্রার্থীর দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে গেছে। সবাই যে যার মত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন এবং ভোটারদের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করছেন।

তবে নতুন ওয়ার্ড হিসেবে ১২নং ওয়ার্ডের দৃশ্যপট কিছুটা ভিন্ন। সদালাপী, হাস্যউজ্জল, উদিয়মান তরুণ ছাত্র নেতা, লালমোহন উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জসিম ফরাজীকে প্রথম কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চান ভোটাররা। জসিম ফরাজী ইতিমধ্যে ১২নং ওয়ার্ডের জনগনের মন জয় করেছেন বিভিন্ন কাজের মাধ্যমে। তিনি সব সময় এলাকার মানুষের সুখে-দুঃখে কাছে থেকে সবাইকে আপন করে নিয়েছেন।

আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে বেশ আলোচনায় আছেন এই ছাত্র নেতা। তার নেতৃত্বের উপর শতভাগ আস্থাশীল এখানকার জনগন। তাই স্থানীয়রা মনে করেন জসিম ফরাজীই হবে লালমোহন পৌরসভার ১২নং ওয়ার্ডের প্রথম কাউন্সিলর।

স্থানীয়রা বলেন, বিগত দিনে সুখে দুঃখে আমরা জসিম ফরাজীকে কাছে পেয়েছি। তার সাধ্যমত সবসময় নিসর্থে আমাদের সহযোগিতা করেছে। তাই আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি এবারের পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর হিসেবে জসিম ফরাজিকেই নির্বাচিত করবো।

নির্বাচন সম্পর্কে জসিম ফরাজী স্বদেশবাণী২৪কে বলেন, আমার প্রিয় নেতা জননেতা দ্বীপবন্ধু আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন এমপি মহোদয়ের উপর আস্থা রেখে আমি ছাত্রলীগের গুরুত্বপূর্ণ দায়ীত্ব পালন করছি। আসন্ন লালমোহন পৌরসভা নির্বাচনে পৌর ১২নংওয়ার্ড এর কাউন্সিলর পদে আমি সকলের দোয়া ও সমর্থন চাই। আমি নির্বাচিত হলে নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন এমপি মহোদয়ের সহযোগিতা নিয়ে এলাকায় গরিব, দুঃখী, অসহায়,মানুষদের সুখে দুঃখে পাশে থেকে মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিং নির্মূলে নিরলসভাবে কাজ করবো ইনশাআল্লাহ।

উল্লেখ্য, জসিম ফরাজী বাংলাদেশ ছাত্রলীগ লালমোহন উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক হিসেবে অত্যন্ত সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন এবং তিনি ২০০৮ সালে লালমোহন উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক, ২০১০ সালে সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন।

No comments:

Post a Comment