Gallery

Advertisement

Main Ad

Travel

Technology

মৌলভীবাজারে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে এম সাইফুর রহমানের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত।

আইসিটিনিউজ বিডি২৪:শেখ সাহেদ মিয়াঃ মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম সাইফুর রহমানের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এম সাইফুর রহমান এর ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মরহুমের গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজার সদর উপজেলার বাহারমর্দনে কোরআন খতম,মিলাদ মাহফিল দোয়া ও শিরনী বিতরণ করা হয়। সকালে এম সাইফুর রহমানের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এম.সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদের সদস্যরা। এরপর মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি ও সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, আবুল কাহের চৌধুরী শামীম ও নাসিম হোসাইনের নেতৃত্বে সিলেট বিভাগের দলীয় নেতাকর্মী ও হবিগঞ্জ পৌর মেয়র আলহাজ্ব জিকে গৌছের নেতৃত্বে হবিগঞ্জের দলীয় নেতা কর্মীরা মরহুমের কবরে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে কবর জিয়ারত ও দোয়ায় অংশ নেন সবাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মরহুম এম সাইফুর রহমানের জ্যৈষ্ঠ পুত্র সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমানসহ পরিবারের সদস্যরা। এ ছাড়াও সিলেট বিভাগের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার দলীয় নেতৃবৃন্দ। দুপুরে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উদ্যোগে তাঁর বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবন নিয়ে তাঁর নিজ বাড়িতে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র ফয়জুল করিম ময়ূনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ভিপি মিজানুর রহমান মিজানের পরিচালনায় স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম নেতা ও জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) এর প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট নওয়াব আলী আব্বাস খান। বক্তব্য রাখেন প্রবীণ বিএনপি নেতা এ্যাডভোকেট সুনীল কুমার দাশ, জেলা বিএনপির সহসভাপতি মৌলভী ওয়ালী সিদ্দিকী, আলহাজ্ব এম মুকিত, আলহাজ্ব মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক,আশিক মোশারফ,আলহাজ্ব আয়াছ আহমদ,জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক শামীম আহমদ,মৌলভীবাজার সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফখরুল ইসলাম,রাজনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি জিতু মিয়া, কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি জয়নাল আবেদীন বাচ্চু, শ্রীমঙ্গল পৌর বিএনপি নেতা সরফরাজ আলী বাবুল, বিএনপি নেতা শফিকুর রহমান প্রমুখ। স্মরণ সভায় দর্শক সারিতে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক এমপি ও মরহুমের জৈষ্ঠ্য পুত্র এম নাসের রহমান ও তাঁর সহর্ধমীনি রেজিয়া নাসেরসহ তাঁর পরিবারের সদস্যরা। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি বদরুল আলম, জলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মো: হেলু মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক মুহিতুর রহমান হেলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক বকশী মিছবাহ উর রহমান, আলহাজ্ব মতিন বক্র, মুজিবুর রহমান মজনু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, প্রচার সম্পাদক এম ইদ্রিস আলী, জেলা যুবদল সভাপতি জাকির হোসেন উজ্জ্বল,সাধারণ সম্পাদক এম এ মুহিত, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি স্বাগত কিশোর দাস চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক জি এম মোক্তাদির রাজু, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো: রুবেল মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আকিদুর রহমান সোহান, জেলা কৃষক দলের সভাপতি এ্যাডভোকে মামুনুর রশিদ মামুন,জেলা মৎস্যজীবী দলের সাধারণ সম্পাদক মোছা মিয়া,জেলা তাঁতী দলের সভাপতি আব্দুর রকিব সাবু,মৌলভীবাজার পৌর বিএনপির সভাপতি আব্দুল হক,কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সজল,সাংগঠনিক আবু সুফিয়ান প্রিন্স,রাজনগর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এম হাকিম বখশ সুন্দর,জেলা জাসাস সভাপতি মারুফ আহমদ।স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক এমপি এ্যাডভোকেট নওয়াব আলী আব্বাস খান বলেন এম সাইফুর রহমান শুধু সিলেট বিভাগ নয় সারা বাংলাদেশের উন্নয়নের রুপকার ও অর্থনীতির গতিস ালক। তাঁর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন এখনো চোখে পড়ার মত। তিনি তলা বিহীন জুড়ী খ্যাত বাংলাদেশের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করেছেন। তাঁর মত দক্ষ অর্থনীতিবীদ বাংলাদেশে আর সৃষ্টি হয়নি। দেশের যত বড় বড় উন্নয়ন তারসবই পরিকল্পনা ছিল এম সাইফুর রহমানের। কেউ স্বীকার করুক আর নাই করুক তাঁর পরিকল্পনাই এখন বাস্তবায়িত হচ্ছে। তিনি যদি আজ বেঁচে থাকতেন আর তাঁর মত যোগ্য নেতৃত্ব যদি থাকত তাহলে আজকে গণতন্ত্রের এমন অপমৃত্যু হতনা। আর দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া অন্যায় ভাবে কারা বন্দিও থাকতেন না। আজকে গণতন্ত্র কারাবন্দী কারণ গণতন্ত্রের মাথা বেগম খালেদা জিয়াকে যদি মুক্ত করতে না পারি তা হলে এদেশে গণতন্ত্র পুন:প্রতিষ্ঠা হবেনা। তাই আজকে এম সাইফুর রহমানের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকীতে আহবান রাখব বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদে বিশ্বাসী সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার। এদিকে এম.সাইফুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মৌলভীবাজারের জেলা ও উপজেলার মসজিদগুলোতে তাঁর রুহের মাগফেরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এম সাইফুর রহমান বাণিজ্য মন্ত্রী, পরিকল্পনামন্ত্রী ও একাধিকবার সফলতার সাথে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী হিসেবে ১২ বার বাজেট পেশ করেছেন তিনি। উল্লেখ্য ২০০৯ সালে ৫ সেপ্টেম্বর মৌলভীবাজারের নিজ বাড়ি বাহারমর্দন থেকে ঢাকায় যাওয়ার সময় ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার ঢাকা- সিলেট মহা সড়কের খড়িয়ালা নামক স্থানে এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করেন।

NEXT ARTICLE Next Post
PREVIOUS ARTICLE Previous Post
NEXT ARTICLE Next Post
PREVIOUS ARTICLE Previous Post
 

Sports

Delivered by FeedBurner