Tuesday, October 15, 2019

কালিগঞ্জে অসুস্থ্য মুক্তিযোদ্ধার সংগঠক ডাঃ হযরত আলীকে দেখতে গেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী। আইসিটিনিউজ বিডি২৪

আইসিটিনিউজ বিডি২৪: মাসুদ পারভেজ বিশেষ প্রতিনিধি: মুক্তিযোদ্ধার সংগঠক বিশিষ্ট চিকিৎসক সাদা মনের মানুষ ডাঃ হযরত আলী ব্রেন স্ট্রোক জনিত কারণে গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে কালিগঞ্জে নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ১৫ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় কালিগঞ্জ বাসটামিনাল সংলগ্ন নিজ বাসভবনে চিকিৎসারত ডাঃ হযরত আলীর বাড়িতে গিয়ে তার শয্যা পাশে তার খোঁজ খবর নিলেন কালিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী। এসময় উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা জর্জ কোটের এপিপি এ্যাডঃ হাবিব ফেরদাউস শিমুল, উপজেলা তথ্য প্রযুক্তিলীগের সভাপতি মাসুদ পারভেজ ক্যাপ্টেন, উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজেদুল হক সাজু প্রমূখ। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী এসময় বলেন, মুক্তিযোদ্ধার সংগঠক ডাঃ হযরত আলী স্বাধীনতা যুদ্ধে ও স্বাধীনতা পরবর্তী নেতৃত্ব দানকারী প্রকৃত একজন মুক্তিযোদ্ধা হয়েও সরকারী চাকুরীতে না গিয়ে মানুষ সেবায় নিজেকে নিবেদন করেছেন। তিনি তার সহকর্মী মুক্তিযোদ্ধা সংগঠকদের অনুরোধ করার শর্তেও কোন আবেদন ফরম পুরন না করে খাতায় নাম লেখাননি এবং সরকারী কোন সুযোগ সুবিধা গ্রহন করেনি। তিনি একমাত্র মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহকে ছাড়া কাউকে ভয় পেতেন না। ১৯৭৫ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান সহ স্বপরিবারে যখন হত্যা হয়, তখন একমাত্র তিনিই কালিগঞ্জে প্লাকার্ড হাতে প্রতিবাদ ও হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবী জানিয়েছিলেন। শুধু তাই নয় বৃদ্ধ বয়সে ১৫ই আগষ্ট আসলে জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচারের দাবীতে প্লাকার্ড হাতে একজন আদর্শসিক পুরুষ হিসাবে নতুন প্রজন্মের কাছে রাজনৈতিক আদর্শ হয়ে থাকবেন। কালিগঞ্জ বাসী তার কাছে ঋনী। তিনি সারা জীবন কালিগঞ্জের মাটি ও মানুষের হৃদয়ে চির স্বরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি তার আশু সুস্থ্যতা ও রোগ মুক্তি কামনা করেন। এসময় ব্রেন স্ট্রোকে অসুস্থ্য ডাঃ হযরত আলী কোন কথা বলতে না পারলেও উপজেলা চেয়ারম্যানের কথা কর্নগোচর হওয়ায় নিরবে চোখের পানি গড়িয়ে পড়ে। আবেগ আপ্লুত হয়ে সন্তানতুল্ল উপজেলা চেয়ারম্যান কে বুকের মধ্যে জড়িয়ে ধরেন।

No comments:

Post a Comment